Rules Regulation

কুষ্টিয়া সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রীবাস-নীতিমালা।

১। স্বাভাবিক অবস্থাতে প্রতিদিন সূর্যোদয়ের আধা ঘন্টা পর প্রয়োজনে হোস্টেল থেকে বাইরে যাওয়া যাবে এবং সূর্যাস্তের পূর্বেই হোস্টেলে প্রবেশ করতে হবে। সূর্যাস্তের পর কেউ হোস্টেল ত্যাগ করতে চাইলে কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিতে হবে।

২। হোষ্টেল থেকে বাইরে যাওয়ার সময় এবং হোষ্টেলে ফিরে আসার সময় কলেজের প্রধান গেটে রক্ষিত রেজিস্টার খাতায় যাওয়া -আসার সময় এবং কারণ/উদ্দেশ্য যথাযথভাবে লিখে সংশি¬ষ্ট ছাত্রীকে কক্ষ নং সহ স্বাক্ষর করতে হবে। এ বিষয়ে কোন শৈথিল্য প্রদর্শণ করা যাবেনা।

৩। বাড়ি থেকে এসে হোস্টেলে অবস্থান এবং হোস্টেল ত্যাগ করে বাড়িতে যাওয়ার সময় হোস্টেল ডাইনিংয়ে রক্ষিত হাজিরা খাতায় আসা-যাওয়ার সময় তারিখ, মোবাইল নম্বর ও কক্ষ নম্বরসহ অবশ্যই স্বাক্ষর করতে হবে।

৪। আসন বরাদ্দ নাই অথবা হোস্টেল সুপারের লিখিত কোন অনুমতি নাই এরূপ কোন ছাত্রী/ অতিথির রাতে হোস্টেলে অবস্থান সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ। যদি কোন কক্ষে এরূপ ছাত্রী/অতিথির অবস্থানের প্রমান পাওয়া যায় তবে সংশ্লি¬ষ্ট কক্ষের আসনের ছাত্রীর আসন বরাদ্দ তাৎক্ষনিকভাবে বাতিল করা হবে।

৫। বিবাহিত ছাত্রীদের জন্য হোস্টেলে কোন আসন বরাদ্দ দেওয়া হবে না। হোষ্টেলে আসন লাভের পর এমন কোন প্রমাণ অথবা কোন ছাত্রীর বিবাহ হলে তার আসনটি ঐ শিক্ষাবর্ষ থেকেই বাতিল বলে গণ্য হবে।

৬। হোষ্টেলে অবস্থানরত সকল ছাত্রীকে নিয়মিত শ্রেনীকক্ষে উপস্থিত থাকতে হবে এবং কলেজের অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা/বিভাগীয় টিউটোরিয়াল পরীক্ষা/বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা সমূহে অকৃতকার্য হলে তার আসন বরাদ্দ সরাসরি বাতিল করা হবে।

৭। কলেজ প্রসশসন/ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক আয়োজিত জাতীয় দিবসের সকল অনুষ্ঠানে সময় মতো ছাত্রীদের অংশগ্রহণ বাধ্যতামূলক।

৮। হোস্টেলে অবস্থানকালীন সময়ে কলেজ কর্তপক্ষ ব্যতীত বাইরের কোন অনুষ্ঠান, পিকনিক ও দর্শনীয় কোন স্থান ভ্রমনে যোগদান করতে ইচ্ছা পোষণ করলে পূর্বেই হোস্টেল সুপারের লিখিত অনুমতি নিতে হবে।

৯। হোষ্টেলে কোন অবস্থাতেই কোন প্রকার অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ/ব্যবহার (যেমন হিটার, বৈদ্যুতিক ইস্ত্রি, ওয়াটার হিটার ইত্যাদি) করা যাবে না। কোন কক্ষে অবৈধ বিদ্যুৎ ব্যবহারের অভিযোগ প্রমান পাওয়া গেলে ঐ কক্ষের আসন বরাদ্দ প্রাপ্ত সকল ছাত্রীর আসন তাৎক্ষনিকভাবে বাতিল করা হবে।

১০। হোস্টেল কক্ষে মোবাইল ফোন ব্যবহারে সতর্ক থাকার জন্য নির্দেশ দেওয়া হলো। মোবাইল ফোন দ্বারা শুধুমাত্র পারিবারিক যোগাযোগ সম্পন্ন করা যাবে। জরুরী কারণ ব্যতীত কোন অবস্থাতেই রাত ১০.০০টার পর মোবাইল ফোন ব্যবহার করা যাবেনা। কারো বিরক্তির কারণ হলে তার মোবাইল ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারী করা হবে।

১১। কোন সহ বোর্ডার (রুমমেট) কে ভয়-ভীতি প্রদর্শন, হুমকি, মারামারি ইত্যাদির প্রমাণ পাওয়া গেলে তাৎক্ষণিক ভাবে কোন নোটিশ ছাড়াই আসন বরাদ্দ বাতিল হবে।

১২। হোষ্টেলে অবস্থানকালীন শান্তি শৃংখলা বজায় রাখা, পরিষ্কার -পরিচ্ছন্ন রাখা এবং সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখা প্রত্যেক ছাত্রীর আবশ্যিক দায়িত্ব ও কর্তব্য। প্রত্যেক ছাত্রীকে নিজ নিজ কক্ষ  ও তদসংলগ্ন জায়গা, বাথরুম, বেসিন ইত্যাদি নিয়মিত পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে এবং নিজের ব্যবহৃত স্যানেটারী ন্যাপকিন ও আবর্জনা রক্ষিত ঝুড়িতে রাখতে হবে।

১৩। হোষ্টেলে অবস্থানকালীন  বিদ্যুৎ , পানি, খাবার ইত্যাদির কোন সমস্যা থাকলে মনিটরের মাধ্যমে লিখিত অভিযোগ হোষ্টেল সুপারের নিকট জানাতে হবে।

১৪। হোস্টেলে অবস্থান কালে হোস্টেল মেসে নির্ধারিত নিয়মে মিল প্রদান অবশ্যই করতে হবে এবং মেস ম্যানেজারের দায়িত্ব পালনে অপারগতা প্রকাশ করা যাবে না। কোন অবস্থাতেই নিজে রান্না করে কিংবা অন্য কোথাও থেকে খেয়ে হোস্টেলে অবস্থান করা যাবে না।

১৫। দীর্ঘমেয়াদী /পারিবারিক ভাবে অসুস্থ ছাত্রীকে অবশ্যই জরুরী ব্যবস্থাপত্র সাথে রাখতে হবে এবং প্রাথমিক চিকিৎসার প্রয়োজনীয় ঔষধ সব সময় কাছে রাখতে হবে।

উপরে বর্নিত নির্দেশনাবলী পালনে ব্যর্থ হলে অভিযুক্ত ছাত্রীর আসন বরাদ্দ বাতিল সহ যে কোন প্রকার শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে বাধ্য থাকিবে হোস্টেল কর্তৃপক্ষ।

অধ্যক্ষ
কুষ্টিয়া সরকারি মহিলা কলেজ, কুষ্টিয়া।